1. [email protected] : শেয়ারবার্তা প্রতিবেদক : শেয়ারবার্তা প্রতিবেদক
  2. [email protected] : শেয়ারবার্তা প্রতিবেদক : শেয়ারবার্তা প্রতিবেদক
  3. [email protected] : শেয়ারবার্তা প্রতিবেদক : শেয়ারবার্তা প্রতিবেদক
  4. [email protected] : শেয়ারবার্তা.কম : শেয়ারবার্তা.কম
পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীরা ১২ হাজার ২০০ কোটি টাকা ফিরে পেয়েছে
শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:৩৯ পূর্বাহ্ন

পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীরা ১২ হাজার ২০০ কোটি টাকা ফিরে পেয়েছে

  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২০
dse-cse-1

গত সপ্তাহের মতো বিগত সপ্তাহেও উত্থানে শেষ হয়েছে পুঁজিবাজারের লেনদেন। সপ্তাহজুড়ে উভয় পুঁজিবাজারের সব সূচক বেড়েছে। বেড়েছে টাকার পরিমাণে লেনদেন। বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দরও বেড়েছে। আর সপ্তাহটিতে বিনিয়োগকারীরা ১২ হাজার ২০০ কোটি ৫৬ লাখ ৩৯ হাজার টাকার ফিরে পেয়েছে।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, বিগত সপ্তাহে ৫ কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৫ হাজার ২৯৪ কোটি ৭৯ লাখ ৮৯ হাজার ৫৯১ টাকার লেনদেন হয়েছে। যা আগের সপ্তাহ থেকে ১ হাজার ৫৫ কোটি ৩৬ লাখ ১০ হাজার ৯৫৮ টাকা বা ২৪.৮৯ শতাংশ বেশি হয়েছে। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৪ হাজার ২৩৯ কোটি ৪৩ লাখ ৭৮ হাজার ৬৩৩ টাকার।

ডিএসইতে সপ্তাহে গড় লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৫৮ কোটি ৯৫ লাখ ৯৭ হাজার ৯১৮ টাকার। আগের সপ্তাহে গড় লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৫৯ কোটি ৮৫ লাখ ৯৪ হাজার ৬৫৮ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে গড় লেনদেন ৮৯ লাখ ৯৬ হাজার ৭৪০ টাকা কম হয়েছে।

তাছাড়া সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৮৩.৪৭ পয়েন্ট বা ১.৬৯ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ১১.২৯ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ১৬.৭০ পয়েন্ট বা ১.৪৬ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ২৪.৮২ পয়েন্ট বা ১.৪৫ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১১৫৮.৫২ পয়েন্টে এবং ১৭৪০.২৩ পয়েন্টে।

বিগত সপ্তাহটিতে ডিএসইতে মোট ৩৬০টি প্রতিষ্ঠান শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে দর বেড়েছে ২১৭টির বা ৬০.২৭ শতাংশের, কমেছে ১১৯টির বা ৩৩.০৫ শতাংশের এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৪টির বা ৬.৬৬ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর।

এদিকে সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে ডিএসইর বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৭৮ হাজার ৯৪১ কোটি ৯৭ লাখ ৬ হাজার টাকায়। সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস লেনদেন শুরুর আগে বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ৭২ হাজার ৫৮৭ কোটি ৭০ লাখ ৫৭ হাজার টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে বাজার মূলধন ১২ হাজার ২০০ কোটি ৫৬ লাখ ৩৯ হাজার টাকা বেড়েছে।

অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বিগত সপ্তাহে টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ১৫৪ কোটি ২৯ লাখ ৫৯ হাজার ৮০২ টাকার। আর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ১১৫ কোটি ৯ লাখ ৫৩ হাজার ৯৮৩ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে সিএসইতে লেনদেন ৩৯ কোটি ২০ লাখ ০৫ হাজার ৮১৯ টাকা বা ৩৪.০৫ শতাংশ বেড়েছে।

বিগত সপ্তাহটিতে সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ২২৮.৫২ পয়েন্ট বা ১.৬২ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ২৯৫.০৯ পয়েন্টে। সিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে সিএসসিএক্স ১১৯.৬৪ পয়েন্ট বা ১.৪১ শতাংশ, সিএসইর-৩০ সূচক ৯৪.৪৬ পয়েন্ট বা ০.৭৮ শতাংশ, সিএসই-৫০ সূচক ১২.৩৭ পয়েন্ট বা ১.২০ শতাংশ এবং সিএসআই ২০.৯৫ পয়েন্ট বা ২.২৮ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ৮ হাজার ৬০২.৫৯ পয়েন্টে, ১২ হাজার ১১৯.৬৭ পয়েন্টে, ১০৪১.৯১ পয়েন্টে এবং ৯৪১.২৬ পয়েন্টে।

তাছাড়া সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে ৩১২টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ১৯২টির বা ৬১.৫৩ শতাংশের দর বেড়েছে, ৯৬টির বা ৩০.৭৬ শতাংশের কমেছে এবং ২৪টির বা ৭.৬৯ শতাংশের দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

এদিকে সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে সিএসইর বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৯ হাজার ১৩ কোটি ৫১ লাখ ৫০ হাজার টাকায়। সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস লেনদেন শুরুর আগে বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ০৩ হাজার ১৬৭ কোটি ২১ লাখ ৬০ হাজার টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে বাজার মূলধন ৫ হাজার ৮৪৬ কোটি ২৯ লাখ ৯০ হাজার টাকা বেড়েছে।

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:

ভালো লাগলে শেয়ার করবেন...

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ