আগামী ২১ জুলাই রোববার বিকাল ৩টায় সোনারবাংলা ইন্সুরেন্সের বোর্ড সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ চলতি হিসাব বছরের ২য় প্রান্তিকের আর্থিক হিসাব প্রকাশ করবে। গতকাল (মঙ্গলবার) বিকালে কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদের বোর্ড সভার খবরটি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) প্রকাশ করা হয়।

বোর্ড সভার খবরে আজ (বুধবার) লেনদেন শুরুর আধা ঘন্টার মধ্যেই কোম্পানিটির শেয়ার বিক্রেতাশুন্য হয়ে পড়ে। সারাদিন জুড়ে ১০ লাখেরও বেশি ক্রেতার ক্রয় আবেদন দেখা গেলেও দিনজুড়ে কোম্পানিটির ৪ লাখ ৭৫ হাজার ৫২৯টি শেয়ার কেনাবেচা হয়। যার ৯৯ ভাগই লেনদেন শুরুর আধা ঘন্টার মধ্যে সম্পাদিত হয়।

আর্থিক প্রতিবেদনে দেখা যায়, চলতি হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ ২০১৯) সোনারবাংলা ইন্সুরেন্স শেয়ার প্রতি ৪৯ পয়সা মুনাফা করেছে। গত হিসাব বছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি মুনাফা ছিল ৪৩ পয়সা। মুনাফা প্রবৃদ্ধি এসেছে প্রায় ১৪ শতাংশ।

গত হিসাব বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে (এপ্রিল-জুন ২০১৮) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা ছিল ৩৫ পয়সা। যেহেতু চলতি হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয়েছে ৪৯ পয়সা, চলতি হিসাব বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির মুনাফায় বড় প্রবৃদ্ধি আসতে পারে। এই গুঞ্জনে সকাল থেকেই কোম্পানিটির শেয়ারের বিশাল সংখ্যক ক্রেতার ক্রয় আবেদন থাকলেও বিক্রেতা খুঁজে পাওয়া যায়নি।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, গত এক মাসে সোনারবাংলা ইন্সুরেন্সের শেয়ার দর কমেছে ১৭ টাকা ৮০ পয়সা বা ৩৫ দশমিক ৬০ শতাংশ। গত ১৯ জুন অর্থাৎ এক মাস আগে কোম্পানিটির শেয়ার দর ছিল ৫০ টাকা। সেই হিসাবে এক মাস পর আজ কোম্পানিটির শেয়ার দর দাঁড়িয়েছে ৩২ টাকা ২০ পয়সা।

উল্লেখ্য, ৩০ ডিসেম্বর ২০১৮ হিসাব বছরের জন্য কোম্পানিটি ১২ শতাংশ লভ্যাংশ দিয়েছে। এর মধ্যে ৬ শতাংশ নগদ ও ৬ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ ছিল। এবছর লভ্যাংশ বেড়েছে ২০ শতাংশ। বিদায়ী হিসাব বছরে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা ছিল ১ টাকা ৬৫ পয়সা।


শেয়ারবার্তা / মামুন