বিদায়ী সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) প্রধান মূল্য সূচক কমলেও বেড়েছে অপর দুই সূচক। আলোচ্য সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেনের পরিমাণ কমেছে ২০.৩৩ শতাংশ। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) লেনদেন কমেছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ৪ হাজার ১১৯ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। তবে এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয় ৫ হাজার ১৭১ কোটি টাকার। সেই হিসাবে আলোচ্য সপ্তাহে লেনদেন কমেছে এক হাজার ৫১ কোটি টাকা বা ২০ দশমিক ৩৩ শতাংশ।

সমাপ্ত সপ্তাহে ‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৮৭ দশমিক ৩৯ শতাংশ। ‘বি’ ক্যাটাগরির কোম্পানির লেনদেন হয়েছে ৯ দশমিক ৭৮ শতাংশ। ‘এন’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ১ দশমিক ৯২ শতাংশ। ‘জেড’ ক্যাটাগরির লেনদেন হয়েছে দশমিক ৯০ শতাংশ।

ডিএসই ব্রড ইনডেক্স বা ডিএসইএক্স সূচক কমেছে দশমিক ১৬ শতাংশ বা ৯.০৯ পয়েন্ট। সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসই৩০ সূচক বেড়েছে দশমিক ৯০ শতাংশ বা ১৮.১৩ পয়েন্ট। অপরদিকে, শরীয়াহ বা ডিএসইএস সূচক বেড়েছে দশমিক ৯৮ শতাংশ বা ১২.৮০ পয়েন্টে।

সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে তালিকাভুক্ত মোট ৩৫১টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১২৪টি কোম্পানির। আর দর কমেছে ২০৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৭টির। আর লেনদেন হয়নি ২টি কোম্পানির শেয়ার।

এদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সেচঞ্জে (সিএসই) লেনদেন হয়েছে ১৫৩ কোটি ৭২ লাখ টাকার শেয়ার। তবে সার্বিক সূচক কমেছে দশমিক ৬১ শতাংশ।

সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে তালিকাভুক্ত মোট ৩০৪টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৮৯টি কোম্পানির। আর দর কমেছে ২০২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৩টির।

শেয়ারবার্তা / মামুন