ঢাকা, বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ৪ পৌষ ১৪২৫

১৪ কোম্পানির মুনাফায় বড় চমক, বিনিয়োগকারীরদের মনে স্বস্তি

২০১৭ নভেম্বর ২৪ ২১:৫৬:২২
১৪ কোম্পানির মুনাফায় বড় চমক, বিনিয়োগকারীরদের মনে স্বস্তি

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ১৪ কোম্পানি চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৭) মুনাফায় বড় চমক দেখিয়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ওয়েবসাইটে প্রকাশিত কো্ম্পানিগুলোর আর্থিক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, কোম্পানিগুলোর মধ্যে বেশিরভাগ কোম্পানির আয় খুব বেশি না হলেও কো্ম্পানিগুলোর প্রবৃদ্ধি চোখে পড়ার মতো। কোম্পানিগুলোর আয় ডিএসইতে প্রকাশিত হওয়ার পর কোম্পানিগুলোর শেয়ার দরে বেশি উল্লম্ফন দেখা যায়। এতে কোম্পানিগুলোর শেয়ারে যারা বিনিয়োগকারী করেছিলেন, তাদের মনেও বড় স্বস্তি ফিরতে দেখা গেছে।


মুন্নু সিরামিক: চলতি অর্থবছরের ১ম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৭) মুন্নু সিরামিকের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) বেড়েছে ৩০০ শতাংশ। এ সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ২০ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৫ পয়সা। ইপিএস বেড়েছে ১৫ পয়সা বা ৩০০ শতাংশ।

ফুওয়াং ফুড: চলতি অর্থবছরের ১ম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৭) ফুওয়াং ফুডের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) বেড়েছে ২২০ শতাংশ। এ সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১০ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৫ পয়সা। ইপিএস বেড়েছে ৫ পয়সা বা ২২০ শতাংশ।

আরএন স্পিনিং: চলতি অর্থবছরের ১ম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৭) আরএন স্পিনিংয়ের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) বেড়েছে ১৯৩ শতাংশ। এ সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ২৬ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে এর লোকসান ছিল ২৮ পয়সা। সেই হিসাবে ইপিএস বেড়েছে ৫৪ পয়সা বা ১৯৩ শতাংশ।

জেনারেশননেক্সট: চলতি অর্থবছরের ১ম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৭) জেনারেশননেক্সটের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) বেড়েছে ১৬৪ শতাংশ। এ সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ২৯ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ১১ পয়সা। এতে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ১৮ পয়সা বা ১৬৪ শতাংশ।

জিকিউ বলপেন: চলতি অর্থবছরের ১ম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৭) জিকিউ বলপেনের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) বেড়েছে ১৪১ শতাংশ। এ সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১৫ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে লোকসান ছিল ৩৭ পয়সা। সেই হিসাবে ইপিএস বেড়েছে ৫২ পয়সা বা ১৪১ শতাংশ।

বিবিএস কেবলস: চলতি অর্থবছরের ১ম প্রান্তিকে বা ৩ মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৭) বিবিএস কেবলসের শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) বেড়েছে ১৩৮ শতাংশ। এ সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৫৭ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৬৬ পয়সা। ইপিএস বেড়েছে ৯১ পয়সা বা ১৩৮ শতাংশ।

মুন্নু জুট স্ট্যাফলার: চলতি অর্থবছরের ১ম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৭) মুন্নু জুট স্টাফলারের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) বেড়েছে ১১২ শতাংশ।
এ সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৫৩ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ২৫ পয়সা। ইপিএস বেড়েছে ২৮ পয়সা বা ১১২ শতাংশ।

আমরা নেটওয়ার্কস: চলতি অর্থবছরের ১ম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৭) আমরা নেটওয়ার্কসের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) বেড়েছে ১০৩ শতাংশ। এ সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ১৮ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ছিল ৫৮ পয়সা। এতে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ৬০ পয়সা বা ১০৩ শতাংশ।

বিকন ফার্মা: চলতি অর্থবছরের ১ম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৭) বিকন ফার্মার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) বেড়েছে ১০০ শতাংশ। এ সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১০ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ছিল ৫ পয়সা। ইপিএস বেড়েছে৫ পয়সা বা বা ১০০ শতাংশ।

আইসিবি: চলতি অর্থবছরের ১ম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৭) আইসিবির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) বেড়েছে ৯৬ শতাংশ। এ সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৯৬ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ছিল ১ টাকা। এতে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ৯৬ পয়সা বা ৯৬ শতাংশ।

আরএসআরএম: আরএসআরএম স্টিলের চলতি অর্থবছরের ১ম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৭) আরএসআারএমের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) বেড়েছে ৯৩ শতাংশ। এ সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৮৩ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৯৫ পয়সা। ইপিএস বেড়েছে ৮৮ পয়সা বা ৯৩ শতাংশ।

ইউনিক হোটেল: চলতি অর্থবছরের ১ম প্রান্তিকে বা ৩ মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৭) ইউনিক হোটেলেল শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) বেড়েছে ৯২ শতাংশ। এ সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৫০ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ২৬ পয়সা। এ হিসাবে ইপিএস বেড়েছে ২৪ পয়সা বা ৯২ শতাংশ।

ফার্মা এইড: চলতি অর্থবছরের ১ম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৭) ফার্মা এইডের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) বেড়েছে ৯০ শতাংশ। এ সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৩ টাকা ৮০ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ২ টাকা। ইপিএস বেড়েছে ১ টাকা ৮০ পয়সা বা ৯০ শতাংশ।

হামিদ ফেব্রিক্স: চলতি অর্থবছরের ১ম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৭) হামিদ ফেব্রিক্সের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) বেড়েছে ৮১ শতাংশ। এ সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৪৭ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ছিল ২৬ পয়সা। এতে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ২১ পয়সা বা ৮১ শতাংশ।



শেয়ারবার্তা / জুয়েল



কোম্পানী সংবাদ এর সর্বশেষ খবর

উপরে