ঢাকা, রবিবার, ৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

আবারও উড্ডয়নের পথে ইউনাইটেড এয়ার

২০১৭ নভেম্বর ০৪ ১১:১০:০৭
আবারও উড্ডয়নের পথে ইউনাইটেড এয়ার

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ভ্রমণ ও অবকাশ খাতের কোম্পানি ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ (বিডি) লিমিটেড বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে চলতি মাসে ২২৪ কোটি টাকা সংগ্রহ করার প্রক্রিয়ায় রয়েছে।

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) অনুমোদিত ২২৪ কোটি টাকা বন্ডের অর্থায়ন পেতে কোম্পানিটি শিগগির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করবে।

কোম্পানি সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘ প্রচেষ্টার পর কয়েকটি ব্যাংক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠান অর্থায়নের আগ্রহ প্রকাশ করায় কোম্পানিটি আর্থিক প্রতিবেদন তৈরি করছে এবং চলতি নভেম্বর মাসে স্টক এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে তা প্রকাশ করা হবে। ফলে আবারও উড্ডয়নের সম্ভাবনায় এগুচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ (বিডি) লিমিটেড প্রথমবারে ৪টি এবং দ্বিতীয়বারে আরও ৪টি প্রতিবেদন প্রকাশ করবে। ইতোমধ্যে আর্থিক প্রতিবেদন সম্পূর্ণ তৈরি করা হয়েছে বলে কোম্পানির সূত্র জানায়।

এ বিষয়ে ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান ক্যাপ্টেন তাসবিরুল আহমেদ চৌধুরী বলেন, “আমাদের প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। আশা করছি- নভম্বর মাসে তা প্রকাশ করা হবে। এতোদিন আমাদের কোন কার্যক্রম বা বিশেষ অগ্রগতি বিনিয়োগকারীদের চোখে পড়ার মতো ছিলনা। ইউনাইটেড এয়ারের ১ লাখ ৫২ হাজার বিনিয়োগকারীকে আশ্বস্থ করতে আমরা প্রতিবেদন প্রকাশ করবো।”

এজিএম সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, “আমাদের ইচ্ছা থাকলেও এখন হয়তো এজিএম করতে পারবো না। কারণ, আদালতের কিছু বাধ্যবাদকতা রয়েছে। তবে এজিএম করার বিষয়ে আমরা সর্বাত্মক প্রয়াস চালাবো।”

কোম্পানির একটি সূত্র জানায়, বিএসইসির অনুমোদন পাওয়া ২২৪ কোটি টাকা বন্ডের অর্থায়ন পেতে এসব আর্থিক প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। অর্থায়নের জন্য কাজ করছে রাষ্ট্রায়াত্ত্ব প্রতিষ্ঠান আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে, ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ বিডি লিমিটেড ২২৪ কোটি টাকার বন্ডের প্রস্তাব ২০১৬ সালের ১৬ জুন অনুমোদন প্রদান করে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি। প্রাইভেট প্লেসমেন্টের মাধ্যমে বর্তমান শেয়ার হোল্ডারদের বাইরে বন্ড ইস্যু করার প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়।

এর আগে বিএসইসির ৫৭৭তম কমিশন সভায় ৪শ’ কোটি ৮০ লাখ টাকার প্রাইভেট প্লেসমেন্ট শেয়ারের অনুমতি প্রদান করে কমিশন। ইতোমধ্যে সে অর্থায়ন থেকে সিঙ্গাপুরের দুটি কোম্পানি ৪০০ কোটি টাকা (অভিহিত মূল্যে) শেয়ারের বিনিময়ে একটি বোয়িং-৭৭৭ ও একটি এটিআর-৭২-৫০০ নতুন প্রজন্মের উড়োজাহাজ দেবে। ব্যবস্থাপনা ব্যয়, বিমান উড্ডয়ন এবং কর্মী বেতন এবং অন্যান্য যোগান দিতে বন্ডের মাধ্যমে সংগৃহীতব্য ২২৪ কোটি টাকা খরচ করা হবে।

বন্ডের মাধ্যমে ২২৪ কোটি টাকা প্রদান সম্পর্কে রাষ্ট্রয়ত্ত প্রতিষ্ঠান আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেডের সিইও সোহেল রাহমান বলেন, “কোম্পানির বন্ডের টাকার ব্যাপারে আমরা চেষ্টা করছি। আশা করছি, পাবলিক লিমিটেড কোম্পানিটি নিয়ে আইসিবি ভালো কিছু করবে। ”

অর্থায়ন সম্ভাব্যতা যাচাই সম্পর্কে আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেডের সিনিয়র অফিসার শরিফ মোহাম্মদ কিবরিয়া বলেন, বন্ডের বিষয়ে আইসিবি সর্বোচ্চ চেষ্টা করবে। তবে এয়ার কর্তৃপক্ষ আরো আগে এসব আর্থিক প্রতিবেদন জমা দিলে এতোদিনে পার হয়ে যেত। আশা করছি, খুব দ্রুত ফলাফল আসবে।



শেয়ারবার্তা / মামুনুর রশিদ

অনুসন্ধানী রিপোর্ট এর সর্বশেষ খবর

উপরে