ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ আগস্ট ২০১৮, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৫

টেক্সটাইল খাতের শেয়ারে সর্বাধিক লেনদেন, দরও বেড়েছে

২০১৭ জুলাই ১৩ ১৮:৩১:০২
টেক্সটাইল খাতের শেয়ারে সর্বাধিক লেনদেন, দরও বেড়েছে

সপ্তাহের শেষ কর্ম দিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে টেক্সটাইল খাতে। এদিন এখাতে সিংহভাগ কোম্পানির শেয়ারের দরও বেড়েছে। বাজার বিশ্লেষনে দেখা যায়, প্রথম দিকে মার্কেটে এখাতে বিক্রয় চাপ বেশি ছিল, ধীরে ধীরে মার্কেটে ক্রেতাদের সংখ্যা বাড়তে থাকে। শেষের দিকে বিক্রয় চাপের তুলনায় ক্রয়ের চাপ বেশি থাকায় অন্যান্য খাতের মতো এখাতেও ইতিবাচক প্রবণতা দেখা যায়। তাই লেনদেন বৃদ্ধির পাশাপাশি অধিকাংশ শেয়ারের দরও বৃদ্ধি পেয়েছে। অন্যান্য খাতের চেয়ে টেক্সটাইল খাতে ক্যাশ ফ্লো এবং ট্রেড ভলিউম উভয়ই বেড়েছে।

লেনদেনের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় ও তৃতীয় অবস্থানে ছিল ফারমাসিউটিক্যাল খাত এবং প্রকৌশল খাত। তুলনামুলক ভাবে মার্কেটের বাকি খাতগুলোর চেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে উভয় খাতেই। বলা যেতে পারে যে বিনিয়োগকারীরা এই খাতগুলোতে ট্রেড বেশি করছে।


টেক্সটাইল খাত : লেনদেনের ভিত্তিতে টেক্সটাইল খাত সবচেয়ে ভাল অবস্থানে দিন শেষ করেছে। টেক্সটাইল খাতে মোট লেনদেনের পরিমান ছিল ১৭৭.২ কোটি টাকার মত যা আগের দিনের তুলনায় প্রায় ৪.৮০ কোটি টাকার মত বেশি। বিগত দিনের চেয়ে আজকে এই খাতে লেনদেন বেড়েছে ২.৭৮%। মোট লেনদেনে এই খাতের অবদান ছিল ১৭.৭৮%।

লেনদেন হওয়া ৪৮টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ৩৫টি ,কমেছে ৬টি কোম্পানির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৭টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।

সর্বাধিক বৃদ্ধি পাওয়া শেয়ার ছিল সায়হাম টেক্সটাইল লিমিটেডের। এই শেয়ারটি ২৩ টাকায় লেনদেন সমাপ্ত করে যা আগের দিনের তুলনায় প্রায় ৫.৫% বেশি। অন্যদিকে এই খাতে সর্বাধিক হ্রাস পাওয়া শেয়ার ছিল রহিম টেক্সটাইলের যা ৩২৫.৩ টাকায় লেনদেন সমাপ্ত করে যা আগের দিনের তুলনায় ১.৭৮% কম।


ফারমাসিউটিক্যাল খাত : লেনদেনের ভিত্তিতে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ফারমাসিউটিক্যাল খাত। এই খাতে আজকে মোট লেনদেনের পরিমান ছিল ১২২.৮ কোটি টাকা যা আগের দিনের তুলনায় ১১.৬০ কোটি টাকার মত কম। বিগত দিনের চেয়ে আজকে এই খাতে লেনদেন কমেছে ৮.৬৩%। মোট লেনদেনে এই খাতের অবদান ছিল ১২.৩৭%।

এই খাতে লেনদেন হওয়া ২৮টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ১৭টি এবং কমেছে ৯টি কোম্পানির এবং অপরিবর্তিত ছিল ২টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।

সর্বাধিক বৃদ্ধি পাওয়া শেয়ার ছিল বিকন ফার্মা যা আজকে ২৪.৩ টাকায় লেনদেন সমাপ্ত করে যা আগের দিনের তুলনায় প্রায় ১.৬৭% বেশি। অন্যদিকে এই খাতে সর্বাধিক হ্রাস পাওয়া শেয়ার ছিল বেক্সিমকো ফার্মার যেটা আজকে ১১৩.২ টাকায় লেনদেন শেষ করে যা আগের দিনের তুলনায় ০.৬১% কম।


প্রকৌশল খাত : প্রকৌশল খাত আজকে দ্বিতীয় অবস্থানে দিন শেষ করেছে। প্রকৌশল খাতে মোট লেনদেনের পরিমান ছিল ১১৮.৩ কোটি টাকার মত যা আগের দিনের তুলনায় ১৭.৫০ কোটি টাকা বেশি। বিগত দিনের চেয়ে আজকে এই খাতে বিনিয়োগ বৃদ্ধি পেয়েছে ১৭.৩৬%। মোট লেনদেনে এই খাতের অবদান ছিল ১১.২৯%।

এই খাতে লেনদেন হওয়া ৩৩ টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ২২টি, কমেছে ৮ টি কোম্পানির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।

সর্বাধিক বৃদ্ধি পাওয়া শেয়ার ছিল সুহৃদ লিমিটেডের। এই কোম্পানির শেয়ার প্রতি ৭৮.৭ টাকায় লেনদেন সমাপ্ত করে যা আগের দিনের তুলনায় ৭.৬৭% বেশি। অন্যদিকে এই খাতে সর্বাধিক হ্রাস পাওয়া শেয়ার ছিল ওয়েস্টার্ন মেরিন প্রতিষ্ঠানের যা ৩৫.৫ টাকায় লেনদেন সমাপ্ত করে যা আগের দিনের তুলনায় ১.৮৮% কম।


শেয়ারবার্তা/আশরাফুল আলম

সংবেদনশীল তথ্য এর সর্বশেষ খবর

উপরে