ঢাকা, বুধবার, ২৩ মে ২০১৮, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

ডিভিডেন্ড ঘোষণাকে কেন্দ্র করে চাঙ্গা পুঁজিবাজার

২০১৭ জুলাই ১১ ১৬:০৯:৪০
ডিভিডেন্ড ঘোষণাকে কেন্দ্র করে চাঙ্গা পুঁজিবাজার

২০১৬ সালের জুলাই ও চলতি বছরের জুন অর্থবছরে ইতিমধ্যে কয়েকটি খাতের আর্থিক হিসাব বছর শেষ হয়েছে। আয়-ব্যয়ের হিসাব শেষে এখন শুধুই মুনাফা ও ডিভিডেন্ড ঘোষণার সময়। আর ডিভিডেন্ড ঘোষণাকে কেন্দ্র করে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীর অংশগ্রহণ বেড়েছে। এতে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মূল্যসূচক ও বাজার মূলধন অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে শীর্ষে পৌঁছেছে। লেনদেন গত চার মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ।

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস গতকাল রবিবার দেশের দুই পুঁজিবাজারেই সূচক ও লেনদেন ঊর্ধ্বমুখী হয়েছে। ডিএসইতে সূচক বেড়েছে অর্ধশতকের বেশি। আর চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক বেড়েছে প্রায় ১০০ পয়েন্ট। এদিকে দুই বাজারেই বেশির ভাগ কম্পানির শেয়ারের দাম ঊর্ধ্বমুখী হয়েছে। ব্যাংক খাতের শতভাগ কম্পানির শেয়ারের দাম বেড়েছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ডিএসইর বাজার মূলধন রেকর্ড গড়েছে। সোমবার ডিএসইর বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ৮৯ হাজার ১৫৯ কোটি ৯২ লাখ ৩২ হাজার ২৬২ টাকা, যা ডিএসইর লেনদেনের ইতিহাসে সর্বোচ্চ। এ ছাড়া মূল্যসূচক প্রথমবারের মতো ৫৮০০ পয়েন্ট পার হয়েছে। ২০১৩ সালে যাত্রার পর সর্বোচ্চ সূচক।

সোমবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে এক হাজার ২৬৪ কোটি ৪৩ লাখ টাকা, যা গত চার মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ১৬০ কোটি ৪১ লাখ টাকা আর মূল্যসূচক বেড়েছিল ২৪ পয়েন্ট।

লেনদেনের ভিত্তিতে শীর্ষে রয়েছে কেয়া কসমেটিকস। কম্পানিটির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৬৭ কোটি ৬ লাখ টাকা। দ্বিতীয় স্থানে থাকা সাইফ পাওয়ারের লেনদেন হয়েছে ৩২ কোটি ৩৩ লাখ টাকা। আর তৃতীয় স্থানে থাকা বেক্সিমকো লিমিটেডের লেনদেন হয়েছে ২৮ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। অন্যান্য শীর্ষ কম্পানি হচ্ছে কনফিডেন্স সিমেন্ট, প্রাইম ব্যাংক, ফু-ওয়াং ফুড, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, অলিম্পিক অ্যাক্সেসরিজ, অ্যাপোলো ইস্পাত ও বাংলাদেশ বিল্ডিং।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন হয়েছে ৮১ কোটি ৩২ লাখ টাকা। আর সূচক বেড়েছে ৯৭ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৮৫ কোটি ৮৩ লাখ টাকা। সোমবার লেনদেন হওয়া ২৬৩ কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১৪৪টির, কমেছে ৯০টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ২৯ কম্পানির শেয়ারের দাম।

দুই কম্পানির দাম বৃদ্ধিতে চিঠি : গত সপ্তাহে ১২ কম্পানির অস্বাভাবিক দাম বৃদ্ধির বিষয়ে জানতে চেয়েছে ডিএসই কর্তৃপক্ষ। কম্পানি দুটি হচ্ছে পেনিনসুলা চিটাগাং ও কেয়া কসমেটিকস। অস্বাভাবিক দাম বৃদ্ধির বিষয়ে জানতে চাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে কম্পানি দুটি বলেছে, দাম বৃদ্ধির পেছনে মূল্যসংবেদনশীল কোনো কারণ নেই। ’

শেয়ারবার্তা/ফারজানা

সংবেদনশীল তথ্য এর সর্বশেষ খবর

উপরে