ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৯ আশ্বিন ১৪২৬

ধারাবাহিক প্রবৃ্দ্ধিতে ইউনাইটেড পাওয়ার

২০১৯ আগস্ট ০৩ ২০:০৭:২২
ধারাবাহিক প্রবৃ্দ্ধিতে ইউনাইটেড পাওয়ার

২০১৫ সালে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্তির পরে নিয়মিত মুনাফা বাড়ছে ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের। একইসঙ্গে শেয়ারহোল্ডারদের লভ্যাংশ প্রাপ্তিও ধারাবাহিকভাবে বাড়ছে। যে চিত্র শেয়ারবাজারে বিরল। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ইউনাইটেড পাওয়ারের ২০১৪ সালে শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয় ৮.৩০ টাকা। এরপর কোম্পানিটির ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ১০.৪২ টাকা, ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ১১.৫০ টাকা ও ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ১১.৫১ টাকা ইপিএস হয়। সর্বশেষ ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ইপিএস বেড়ে হয়েছে ১৬.০৮ টাকা।

এদিকে ২০১৪ সালের ৪০ শতাংশ (৩০% নগদ ও ১০% বোনাস) লভ্যাংশ পরবর্তী ১৮ মাসে (জানুয়ারি ১৫-জুন ১৬) বেড়ে হয় ১২৫ শতাংশ নগদ। যা বাৎসরিক আনুপাতিক হারে হয় ৮৩ শতাংশ। এরপরে ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ১০০ শতাংশ (৯০% নগদ ও ১০% বোনাস) ও ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ১১০ শতাংশ (৯০% নগদ ও ২০% বোনাস) লভ্যাংশ ঘোষণা করা হয়। আর সর্বশেষ ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য ১৪০ শতাংশ (১৩০% নগদ ও ১০% বোনাস) লভ্যাংশ ঘোষণা করা হয়েছে।

কোম্পানিটির ২০১৮-১৯ অর্থবছরে শেয়ারপ্রতি ১৬.০৮ টাকা হিসেবে মোট ৭৭০ কোটি ৩৭ লাখ টাকার নিট মুনাফা হয়েছে। এরমধ্য থেকে শেয়ারহোল্ডারদের মাঝে শেয়ারপ্রতি ১৩ টাকা হিসাবে ৬২২ কোটি ৮১ লাখ টাকার নগদ লভ্যাংশ বিতরণ করা হবে ও শেয়ারপ্রতি ১ টাকা হিসাবে ৪৭ কোটি ৯১ লাখ টাকা দিয়ে পরিশোধিত মূলধন বাড়ানো হবে। আর বাকি ৯৯ কোটি ৬৫ লাখ টাকা রিজার্ভে যোগ হবে।

৪৭৯ কোটি ৯ লাখ টাকা পরিশোধিত মূলধনের ইউনাইটেড পাওয়ারে উদ্যোক্তা/পরিচালকদের মালিকানা রয়েছে ৯০ শতাংশ। আর ৬.৪৪ শতাংশ প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের, ৩.৫২ শতাংশ সাধারণ বিনিয়োগকারীদের ও বাকি ০.০৪ শতাংশ বিদেশী বিনিয়োগকারীদের হাতে রয়েছে।

উল্লেখ্য,বৃহস্পতিবার (০১ আগস্ট) ইউনাইটেড পাওয়ারের শেয়ার দর দাঁড়িয়েছে ৩৮৩.৬০ টাকায়।

শেয়ারবার্তা / মামুন

সংবেদনশীল তথ্য এর সর্বশেষ খবর

উপরে