ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬

বন্ধ হয়ে যাচ্ছে পিপলস লিজিং

২০১৯ জুলাই ০৯ ১৩:৫০:০৫
বন্ধ হয়ে যাচ্ছে পিপলস লিজিং

বন্ধ হয়ে যাচ্ছে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত আর্থিক খাতের প্রতিষ্ঠান পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেড (পিএলএফএসএল)। বিপুল পরিমাণ খেলাপী ঋণ আর আমানতকারীদের টাকা ফেরতে ব্যর্থতার কারণে প্রতিষ্ঠানটিকে বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। বাংলাদেশ ব্যাংক ও অর্থমন্ত্রণালয় সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

আর্থিক খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ ব্যাংক দেশে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের (এনবিএফআই) লাইসেন্স দিয়ে থাকে। পিপলস লিজিং এর নাজুক অবস্থার প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ ব্যাংকই কোম্পানিটির লাইসেন্স বাতিল ও এটিকে বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে তার আগে তারা অর্থমন্ত্রণালয় তথা সরকারের অনুমতি নিয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংক পিপলস লিজিং বন্ধ করে দেওয়ার অনুমতি চেয়ে অর্থমন্ত্রণালয়ে একটি আবেদন পাঠালে মন্ত্রণালয় তাতে সম্মতি দিয়েছে।

শুধু পিপলস লিজিং এর লিজিং ব্যবসার লাইসেন্স বাতিল নয় বা ব্যবসা সাময়িক বন্ধ নয়, কোম্পানিটির পূর্ণ অবসায়ন ঘটানো হবে। তবে অর্থমন্ত্রণালয় সম্মতি দিলেও অবসায়নের জন্য হাইকোর্টের কাছ থেকে সম্মতি নিতে হবে। পিপলস লিজিং বন্ধ হলে এটিই হবে দেশে কোনো আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়ার প্রথম ঘটনা।

সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, পিপলস লিজিং বন্ধ খরে দেওয়ার মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংক ও সরকার অন্যান্য ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের জন্য একটি সতর্ক বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করছে। আর্থিক খাতে যে অনিয়ম, দায়িত্বহীনতা, অদক্ষতা ইত্যাদি চলছে তার ফলে আগামী দিনে পিপলসের মতো নাজুক অবস্থায় থাকা আরও ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে পারে। এ বার্তাকে গুরুত্বের সঙ্গে নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিলে প্রতিষ্ঠানগুলোর মানের যথেষ্ট উন্নতি হবে বলে তাদের আশা।

আইন অনুযায়ী, হাইকোর্ট অনুমোদন দিলে বাংলাদেশ ব্যাংক একজন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে অবসায়ক (Liquidator) নিয়োগ দেবে বাংলাদেশ ব্যাংক। আর এই লিক্যুইডেটর কোম্পানির অবসায়ন (Wind up) এর প্রক্রিয়াকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। তিনি কোম্পানিটির সম্পদের মূল্য ও দায়-দেনা নিরুপণ করবেন। পরবর্তীতে পাওনা আদায় ও সম্পদ বিক্রির মাধ্যমে দেনা শোধ করার ব্যবস্থা করবেন।

শেয়ার বার্তা/ সাগর

সংবেদনশীল তথ্য এর সর্বশেষ খবর

উপরে