ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

হঠাৎ রানার অটোমোবাইলসের শেয়ার দরে ঊর্ধ্বগতি!

২০১৯ জুলাই ০৬ ১১:৪৬:১৩
হঠাৎ রানার অটোমোবাইলসের শেয়ার দরে ঊর্ধ্বগতি!

বিদায়ী সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনের শীর্ষে ছিল রানার অটোমোবাইলস লিমিটেড। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির ৫২ লাখ ২৪ হাজার ৫১৪টি শেয়ার ৫৪ কোটি ৮৫ লাখ ২৮ হাজার টাকায় লেনদেন হয়েছে, যা মোট লেনদেনের দুই দশমিক ৮২ শতাংশ। সপ্তাহজুড়ে শেয়ারটির দর বেড়েছে ১০ দশমিক ৪৯ শতাংশ। আর ৮ কার্যদিবসে কোম্পানিটির শেয়ার দর ৭৮ টাকা ১০ পয়সা থেকে ১০৬ টাকা ৪০ পয়সায় উঠেছে। অর্থাৎ ৮ কার্যদিবসে এর দর বেড়েছে ২২ দশমিক ১০ শতাংশ। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, সপ্তাহের শেষদিনে কোম্পানিটির শেয়ারদর দুই দশমিক ৬৫ শতাংশ বা দুই টাকা ৯০ পয়সা কমে প্রতিটি শেয়ার সর্বশেষ ১০৬ টাকা ৪০ পয়সায় হাতবদল হয়। শেয়ারটির সমাপনী দরও দাঁড়িয়েছে ১০৬ টাকা ৪০ পয়সা। ওইদিন কোম্পানিটির শেয়ারদর সর্বনিন্ম ১০৫ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ১১৪ টাকা ৫০ পয়সায় হাতবদল হয়। আর গত এক বছরে শেয়ারটির দর ৭৭ টাকা ৭০ পয়সা থেকে ১১৪ টাকা ৫০ পয়সায় ওঠানামা করে।

‘এন’ ক্যাটেগরির রানার অটোমোবাইলস লিমিটেড ২০১৯ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। কোম্পানিটির ২০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ১০৮ কোটি ১৩ লাখ ৩০ হাজার টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ ৫৬১ কোটি ৪৯ লাখ ৬০ হাজার টাকা।

কোম্পানিটির মোট ১০ কোটি ৮১ লাখ ৩৩ হাজার ২৬৯টি শেয়ার রয়েছে। মোট শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা ও পরিচালকের কাছে ৫০ দশমিক চার শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক ২৬ দশমিক ৭৬ শতাংশ, বিদেশি বিনিয়োগকারীদের কাছে শূন্য দশমিক শূন্য চার শতাংশ এবং ২৩ দশমিক ১৬ শতাংশ শেয়ার রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে।

বিদায়ী হিসাব বছরে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ টাকা ১২ পয়সা। আগের হিসাব বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৩ টাকা ৭১ পয়সা। সর্বশেষ দর অনুযায়ী এর বর্তমান মূল্য আয় অনুপাত হলো ২৫ দশমিক ৫৮ পয়েন্ট।

শেয়ারবার্তা / মামুন

সংবেদনশীল তথ্য এর সর্বশেষ খবর

উপরে