ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬

বিএসইসিতে ১৩ মাস যাবত এক কমিশনারের পদ শূন্য

২০১৯ জুন ০৯ ১৬:৫৮:৫৯
বিএসইসিতে ১৩ মাস যাবত এক কমিশনারের পদ শূন্য

শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনে (বিএসইসি) ১৩ মাস ধরে ১ কমিশনারের পদ শূন্য রয়েছে। সাবেক কমিশনার মো. আমজাদ হোসেন ১৩ মাসে আগে বিদায় নিলেও শূন্য পদে এখনো কাউকে নিয়োগ দেওয়া হয়নি।

আইন অনুযায়ি, বিএসইসিতে মো. আমজাদ হোসেনের মেয়াদ শেষ হয়েছে গত বছরের ৩০ এপ্রিল। এরই ধারাবাহিকতায় তিনি বিএসইসি থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় নিয়েছেন ৩০ এপ্রিল। যাতে বিএসইসির ওয়েবসাইট থেকে তার নাম প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে। তবে তার বিদায়ের ১৩ মাসেও সৃষ্ট শূন্য পদে কাউকে নিয়োগ দেওয়া হয়নি।

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন আইন, ১৯৯৩ সালের ৫ এর ৬ উপধারা অনুযায়ি, বিএসইসির চেয়ারম্যান ও কমিশনারগণ শুধুমাত্র ১টি মাত্র মেয়াদের জন্য পূণ:নিয়োগের যোগ্য হইবেন। সে হিসেবে মো. আমজাদ হোসেনের আর পূণ:নিয়োগের সুযোগ ছিল না।

২০১০ সালের শেয়ারবাজারে ধসে বিএসইসিকে নতুন করে ঢেলে সাজানো হয়। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১১ সালে মো. আমজাদ হোসেনকে কমিশনে নিয়োগ দেওয়া হয়। যার ২ দফায় নিয়োগের ৭ বছর শেষে হয়ে গেছে।

বিএসইসিতে মো. আমজাদ হোসেনকে প্রথমবার ৩ বছরের জন্য নিয়োগ দেওয়া হয়। যা শেষ হওয়ার আগেই পূণ:নিয়োগ পান। তবে এক্ষেত্রে ৪ বছরের জন্য পূণ:নিয়োগ পান। কারণ এরইমধ্যে কমিশনের চেয়ারম্যান ও সদস্যদের মেয়াদ ৩ বছর থেকে বৃদ্ধি করে ৪ বছর করা হয়।

শেয়ারবার্তা / জুয়েল

বাজার বিশ্লেষণ এর সর্বশেষ খবর

উপরে