ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

৪০০ কোটি টাকার বিনিয়োগ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে আলিফের ইজিএম

২০১৮ মার্চ ১১ ১৮:৫৪:২৪
৪০০ কোটি টাকার বিনিয়োগ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে আলিফের ইজিএম

নতুন ব্যবসায় বিনিয়োগ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে কোম্পানির সংঘস্মারকে পরিবর্তন আনতে হবে আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডকে। এতে শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদন নিতে ১৪ মার্চের পরিবর্তে ১৯ মার্চ বিশেষ সাধারণ সভা (ইজিএম) আহ্বান করেছে কোম্পানিটি। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে জানা গেছে, ইজিএমের রেকর্ড ডেট ছিল ১১ মার্চ, রোববার।

জানা গেছে, ব্যবসা সম্প্রসারণের জন্য দুটি নতুন ইউনিট চালু করতে ৪০০ কোটি টাকা বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজের পরিচালনা পর্ষদ। এজন্য নতুন করে মূলধন উত্তোলনেরও পরিকল্পনা করেছে কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ।

পরিকল্পনা অনুসারে আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ ৫০ হাজার স্পিন্ডলের একটি স্পিনিং মিল স্থাপন করবে। এছাড়া ওভেন ডেনিম উৎপাদনের জন্য ২৫টি প্রডাকশন লাইনসমৃদ্ধ আরেকটি পরিবেশবান্ধব ইউনিট স্থাপন করা হবে। অর্থসংস্থানে তালিকাভুক্ত কোম্পানিটির মূলধনও বাড়ানো হবে।

এজন্য কোম্পানির অনুমোদিত মূলধন ৫০ কোটি থেকে বাড়িয়ে ১৫০ কোটি টাকা করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। পাশাপাশি উদ্যোক্তা-পরিচালক, শেয়ারহোল্ডার বা প্রাইভেট প্লেসমেন্টে বিনিয়োগে আগ্রহীদের নামে নতুন করে কোম্পানির ৩ কোটি শেয়ারও ইস্যু করতে চায় তাদের পর্ষদ। মূল্য-আয় (পিই) অনুপাত ৩০ এবং তিন মাসের শেয়ারদরের চলমান গড়কে (মুভিং অ্যাভারেজ প্রাইস) নতুন শেয়ারগুলোর দাম নির্ধারণে রেফারেন্স হিসেবে ব্যবহারে আগ্রহী কোম্পানির পর্ষদ। এজন্য শেয়ারহোল্ডার ও নিয়ন্ত্রক সংস্থার অনুমোদন প্রয়োজন হবে তাদের।

সর্বশেষ ৩০ জুন সমাপ্ত ২০১৭ হিসাব বছরে শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ২৫ শতাংশ স্টক ও ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪ টাকা ৩৭ পয়সা, শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) ২৪ টাকা ১৪ পয়সায় দাঁড়ায়।

চলতি হিসাব বছরের দ্বিতীয় (অক্টোবর-ডিসেম্বর) প্রান্তিকে আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজের ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৩৯ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে তা ছিল ৭৫ পয়সা। এ সময়ে আয়ে প্রবৃদ্ধি আসে ৮৫ দশমিক ৩৩ শতাংশ।

অন্যদিকে, চলতি অর্থবছরের দুই প্রান্তিকে (জুলাই-ডিসেম্বর) ইপিএস দাঁড়িয়েছে ২ টাকা ৪ পয়সা, আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ৩১ পয়সা। আলোচ্য সময়ে আয়ে প্রবৃদ্ধি দেখা যায় ৫৫ দশমিক ৭৩ শতাংশ।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির সম্পদ মূল্যও ২৪ টাকা ১৪ পয়সা হতে ২৬ টাকা ১৮ পয়সায় বৃদ্ধি পেয়েছে।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৫২ সপ্তাহের মধ্যে কোম্পানিটির সর্বনিম্ন দর ছিল ৮৮ টাকা ও সর্বোচ্চ ১৫৭ টাকা ৩০ পয়সা। ডিএসইতে সর্বশেষ ১০২ টাকা ৭০ পয়সায় আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজের শেয়ার লেনদেন হয়। সেই হিসাবে এর বর্তমান মূল্য আয় অনুপাত (পিই) ২৪.৯৫।


শেয়ারবার্তা / মামুন

সংবেদনশীল তথ্য এর সর্বশেষ খবর

উপরে